বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১০:৪৯ অপরাহ্ন

বর্তমান অর্থনৈতিক বাস্তবতায় দেশে দেশে সস্তা খাবারের দিকে ঝুঁকছে মানুষ

  • Update Time : রবিবার, ৭ জুলাই, ২০২৪, ৭.২৬ পিএম

সারাক্ষণ ডেস্ক

মুদ্রাস্ফীতির ধকলে ক্লান্ত আমেরিকান থেকে কর্মহীন চাইনিজ সবাই এখন কম দামি রেস্টুরেন্টে খাবার খেতে পারছে। আর সেই ধারা রেস্টুরেন্ট মালিকরা আবার ফিরিয়ে আনতে চায়। সম্প্রতি নিউইয়র্কের একটি ম্যাকডোনাল্ড কর্তৃপক্ষ ক্রেতাদের জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় বেঁধে দেয় যে মাত্র পাঁচ ডলারে  একটি চিকেন স্যান্ডউইচ , স্মল সাইজ চিকেন নাগেটস এবং একটা ড্রিঙ্ক পাওয়া যাবে।

জাপানে একটি ফাস্টফুডের দোকান

এই আইটেমগুলো যদি আলাদাভাবে অর্ডার করা হতো তাহলে ট্যাক্স ছাড়া এর দাম পড়তো $৮.৯৬ ডলার মাত্র । ম্যাকডোনাল্ড চেইন ইউএসএ এর প্রেসিডেন্ট জো আরলিঙ্গার এক মন্তব্যে বলেন, ভোক্তারা আমাদের কাছ থেকে আরো সহনীয় দাম আশা করেন আমরা আশা করি আসন্ন গ্রীষ্মে তারা তা পাবেন।

আবার ম্যাকডোনাল্ড প্রতিপক্ষরা এর আশেপাশে থাকার জন্য দৌড়াচ্ছেন। স্টারবাক গত মাসে সকালের নাস্তায় একটি স্যান্ডউইচ আরেকটি কফি মাত্র ৬ ডলারে দিয়েছেন যেটার স্বাভাবিক দাম ৮.৬ ডলার। পাসপোর্ট চেইন বার্গার কিং ওয়েন্ডিং এবং আরবি ও সিঙ্গেল ডিজিট ডলার রেঞ্জে খাবার অফার করছে ।

আমেরিকান রেস্তোঁরায় ফাস্টফুড

এখন পর্যন্ত আমেরিকান রেস্তোঁরাগুলো জিনিসপত্রের দাম ও লেবার কস্ট দুটোই ভোক্তাদের উপরে চাপাতে চাচ্ছেন। বছরের শুরুতে কানেক্ট টিকাটের একটি ম্যাকডোনাল্ডে একটা ১৭.৫৯ ডলারে  মানে সবচেয়ে বেশী দামে বিক্রির জন্য খবরের শিরোনাম হয়েছিল ।

ব্যাংক অফ আমেরিকার জুন মাসের একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে যেখানে তারা বলে যে যুবক শ্রেণী এখন বাইরে না খেয়ে ঘরে খেতে পছন্দ করছে কারণ গ্রোসারি সব গুলোর মূল্য নিয়েও তারা ভাবছেন। জানুয়ারি -মার্চ পিরিয়ড এ স্টারবাকের কোয়ার্টারে প্রথম রাজস্ব ঘাটতিতে পড়ে যান যখন কেএফসি ব্রাঞ্চ ১৫ তম কোয়ার্টারে প্রথম ঘাটতিতে পড়ে ।

জাপানী রেস্তোরাঁ

যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রাস্ফীতি সহজ হয়েছে কিন্তু উর্ধ্বমুখী চলমান। এ বছর মে মাসে ভোক্তা মূল্যসূচক ৩৩% বেড়েছে। মানুষ এখন অনেকটাই বিলাসিতা মনে করে মানুষ খরচ কমাতে অনেকটাই বাধ্য হচ্ছে।

জাপানি ভোক্তারা এখন মূল্য সম্পর্কে সচেতন হয়েছেন কারণ মূল্যস্ফীতির সাথে সাথে তাদের বেতনের পরিমাণ বাড়েনি। গত মে মাস থেকে ফ্রাইড চিকেন চেইন কেএফসি জাপান স্যান্ডউইচ, পানীয় সহ প্রায় ১৬ টি লাঞ্চ আইটেমের উপর ৪০ ইয়েন করে কমিয়েছে। ২০২০ সালের মার্চেও অক্টোবরে কিছু আইটেমের দাম বাড়ানোর ফলে ক্রেতার সংখ্যা সংখ্যা কমে গিয়েছিল।

 

নভেম্বরে রেস্টুরেন্ট গ্রুপ স্কাই লার্ক ফোল্ডিংস এর গাস্টো ফ্যামিলি রেস্তোরাঁ গ্রুপ পিজা, হ্যাম বার্গার এবং অ্যালকোহলিক পানীয় সহ তাদের ৩০ টি আইটেমের উপর মূল্য কমিয়ে ছিল যা তালিকার ১৬% ।

ইতালিয়ান ফুড চেইন সাইজেরিয়া তাদের খাবারের দাম বাড়াননি যেখানে তাদের অনেক প্রতিযোগিই দাম বাড়িয়েছিল। দাম কমানোর ফলে ছয় মাসে তাদের বিক্রি ২১.৩% বেড়ে যায় এবং ভোক্তার পরিমান বাড়ে ১৯.১% । দূর্বল ইয়েনে রেস্টুরেন্ট পরিচালনা ব্যয় বাড়লেও রেস্টুরেন্ট পলিসি একই থেকে যায়।

ইতালিয়ান ফুড চেইন সাইজেরিয়া তাদের খাবারের দাম বাড়াননি যেখানে তাদের অনেক প্রতিযোগিই দাম বাড়িয়েছিল। দাম কমানোর ফলে ছয় মাসে তাদের বিক্রি ২১.৩% বেড়ে যায় এবং ভোক্তার পরিমান বাড়ে ১৯.১% । দূর্বল ইয়েনে রেস্টুরেন্ট পরিচালনা ব্যয় বাড়লেও রেস্টুরেন্ট পলিসি একই থেকে যায়।

ইটালিয়ান পিজা

চায়নাতে হটপট রেস্টুরেন্ট অপারেটর হাইডিলাও যার ১৩০০ টি আউটডোর লোকেশন আছে সেটি গত শরতে কম দামে খাবার বিক্রি শুরু করেছে। একটি স্যুপ বিক্রির হটপট মাত্র ৯.৯০ ইউয়ানে একটি লোকেশানে বিক্রি শুরু করে যা প্রায় ৮০% কম দামে বিক্রি করা হচ্ছে বলে জানায় তারা। এটিকে ভোক্তারা খুবই পছন্দ করেছে।

চায়নাতে ৪৫০ টি স্টোর আছে এমন একটি হলো ইয়ঙএ কিং ফাস্টফুড চেইন শাপ যেটি তাদের খাদ্যের মূল্যের উপরে চিন্তা করছে। এটি মাত্র ৬ ইউয়ানে নাস্তা বিক্রি করছে। চায়নাতে যুবকদের বেকারত্ব বেড়েই চলছে। মে মাসে ১৬-২৪ বছরের মানুষদের ১৪.২% এবং ২৫-২৯ বছরের মানুষদের ৬.৬% বেকারত্ব বেড়েছে। ন্যাশনাল ব্যুরো অব স্ট্যাটিসটিকস এর মতে দুটোই সাধারন বৃদ্ধির হার ৫% এর চেয়ে বেশী।

তাকেশি তাকায়ামা, এনএলআই এর একজন সিনিয়র গবেষক বলেছেন, বিভিন্ন দেশের রেস্তোরাঁগুলো বিভিন্ন কারনে মূল্য কমাচ্ছে।

জাপানী রেস্টুরেন্টে একজন নারী কর্মী

তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্রে কম আয়ের মানুষরা যারা মূদ্রাস্ফীতির সাথে তাল মিলাতে পারছেননা তারা অর্থ সাশ্রয়ের দিকে মনোযোগ দিচ্ছেন। চায়না মূদ্রা সংকোচনের পথে যেখানে জাপানে আসল বেতনই বাড়েনি, তাই জিনিষপত্রের দাম বাড়ানো কঠিন। চায়নাতে হটপট রেস্টুরেন্ট অপারেটর হাইডিলাও যার ১৩০০ টি আউটডোর লোকেশন আছে সেটি গত শরতে কম দামে খাবার বিক্রি শুরু করেছে।

একটি স্যুপ বিক্রির হটপট মাত্র ৯.৯০ ইউয়ানে একটি লোকেশানে বিক্রি শুরু করে যা প্রায় ৮০% কম দামে বিক্রি করা হচ্ছে বলে জানায় তারা। এটিকে ভোক্তারা খুবই পছন্দ করেছে। চায়নাতে ৪৫০ টি স্টোর আছে এমন একটি হলো ইয়ঙএ কিং ফাস্টফুড চেইন শাপ যেটি তাদের খাদ্যের মূল্যের উপরে চিন্তা করছে। এটি মাত্র ৬ ইউয়ানে নাস্তা বিক্রি করছে।

চায়নাতে যুবকদের বেকারত্ব বেড়েই চলছে। মে মাসে ১৬-২৪ বছরের মানুষদের ১৪.২% এবং ২৫-২৯ বছরের মানুষদের ৬.৬% বেকারত্ব বেড়েছে। ন্যাশনাল ব্যুরো অব স্ট্যাটিসটিকস এর মতে দুটোই সাধারন বৃদ্ধির হার ৫% এর চেয়ে বেশী।

তাকেশি তাকায়ামা, এনএলআই এর একজন সিনিয়র গবেষক বলেছেন, বিভিন্ন দেশের রেস্তোরাঁগুলো বিভিন্ন কারনে মূল্য কমাচ্ছে।

তিনি জানান, কম আয়ের মানুষরা যারা মূদ্রাস্ফীতির সাথে তাল মিলাতে পারছেননা তারা অর্থ সাশ্রয়ের দিকে মনোযোগ দিচ্ছেন। চায়না মূদ্রা সংকোচনের পথে যেখানে জাপানে আসল বেতনই বাড়েনি, তাই জিনিষপত্রের দাম বাড়ানো কঠিন।

 

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

kjhdf73kjhykjhuhf
© All rights reserved © 2024