সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নীলের বিশ্বায়ন – নীল ও ঔপনিবেশিক বাংলায় গোয়েন্দাগিরি (পর্ব-২১) ফেরদৌসের আয়োজনে ‘উচ্ছ্বাসে উৎসবে’ মুগ্ধতা ছড়ালেন তারা ওকে গাইতে দাও (পর্ব-২) বিদেশে শিক্ষা বাণিজ্যে পা রাখার চেষ্টা করছে চায়না সুচিকিৎসা পাচ্ছেন বলেই খালেদা জিয়া এখন পর্য্যন্ত সুস্থ আছেন: আইনমন্ত্রী বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরিতে বিসিপিএসকে কার্যকরী ভূমিকা রাখার তাগিদ রাষ্ট্রপতির সরকার বিজ্ঞান-প্রযুক্তিকে অগ্রাধিকার দিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে : প্রধানমন্ত্রী জনগণের সম্মতি ছাড়া রেল চলালচলের চুক্তি মানিনা – ‘এবি পার্টি’ যুদ্ধ এবং ‘এআই’ বরেন্দ্র এলাকায় পানির হাহাকার: মাটির নিচের পানি কোথায় গেলো?

বিএসএমএমইউ জার্নালের বিশ্ব স্বীকৃতিতে ক্যাম্পাসে আনন্দের বন্যা

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪, ৬.৫০ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক

আজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য মহোদয়ের কার্যালয়ে বিএসএমএমইউ জার্নালের সম্পাদনা বোর্ডের সদস্যরা সাক্ষাৎ করে মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. দীন মোঃ নূরুল হক মহোদয়কে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। মাননীয় উপাচার্য মহোদয়ও বিএসএমএমইউ জার্নালের সম্পাদনা বোর্ডের সদস্যদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) জার্নালের বিশ্ব স্বীকৃতিতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বইছে আনন্দের বন্যা। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, চিকিৎসক ও রেসিডেন্টদের মাঝে বইছে উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবের আমেজ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় জার্নাল স্কোপাস ইনডেক্সে অন্তর্ভুক্তির স্বীকৃতি মেলায়  অত্র  বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশ্ব র‍্যাংকিং এর জন্য যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমন চিকিৎসা সেবা, উচ্চতর মেডিক্যাল শিক্ষা ও স্বাস্থ্য গবেষণার জন্য এটি মাইলফলক হয়ে থাকবে।

১৯ মে বিএসএমএমইউ জার্নাল স্কোপাস (Scopus) ) ইনডেক্সের স্বীকৃতি লাভ করেছে। এই অর্জন ও স্বীকৃতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়সহ সমগ্র দেশের জন্য অত্যন্ত গৌরব, গর্ব ও সম্মানের। স্কোপাস বিশ্বব্যাপী একটি মানসবম্মত জার্নাল ইনডেক্সিং কর্তৃপক্ষ, যা এলসেভিয়ার (Elsevier) ) নেদারল্যান্ড দ্বারা পরিচালিত। আন্তর্জাতিক স্কোপাস স্বতন্ত্র রিভিউ কমিটি ১৪টি মানদন্ডের উপর ভিত্তি করে বিএসএমএমইউ জার্নাল পর্যালোচনা করেছে এবং অনুমোদন দিয়েছে। এই মানদন্ডগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো প্রকাশিত পেপারের মান, পেপারের বৈচিত্র্যতা, সম্পাদকীয় বোর্ড মেম্বারদের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি ও বৈচিত্র্যতা, নিরপেক্ষ ও দায়িত্বশীল রিভিউ প্রক্রিয়া এবং প্রকাশিত ম্যানুস্ক্রিপ্টের সাইটেশন ইত্যাদি।

এখানে উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান উপাচার্যের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ইনস্টিটিশনাল রিভিউ বোর্ড (আই,আর,বি) আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণসহ বিএসএমএমইউ জার্নালের উন্নয়নে নানামুখী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসনের আমলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সহযোগিতায় বিশ্বমানের গবেষণা কার্যক্রম সম্পন্ন করা ও বিশ্বমানের জার্নাল প্রকাশ করার লক্ষ্যে প্রথমবারের মত ডব্লিউএইচও (WHO) কস্ট সেন্টার চালু করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন অটিজম বিশেষজ্ঞ, স্কুল সাইকোলজিস্ট, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক এ্যাডভাইসরি প্যানেলের বিশেষজ্ঞ, বাংলাদেশের অটিজম বিষয়ক জাতীয় উপদেষ্টা কমিটির সভাপতি, ডব্লিউএইচও এর রিজনাল ডাইরেক্টর জনাব সায়মা ওয়াজেদ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক নির্বাচিত হওয়ার পর ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক গবেষক ডা. মঞ্জু রাণী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে ফ্যাকাল্টিদের গবেষণাসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করেছেন। এসকল কার্যক্রমের কারণেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় জার্নালের এই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির সাফল্য অর্জন করা সম্ভব হয়েছে।বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অর্জনে নিরলস পরিশ্রম করেছেন জার্নালের সম্পাদনা পরিষদের সদস্যবৃন্দ ও জার্নাল অফিসের কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য ও বিএসএমএমইউ জার্নালের মূখ্য সম্পাদক (এডিটর ইন চীফ) অধ্যাপক ডা. দীন মোঃ নূরুল হক মহোদয় তাদের সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ধারাবাহিক সহযোগীতার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে। একই সাথে কতৃজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার প্রতি।

তিনি বলেন, জাতির পিতার নামে প্রতিষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বের বুকে সুনাম ও মর্যাদার সাথে সু প্রতিষ্ঠিত করতে, এই বিশ্ববিদ্যালয়কে আন্তর্জাতিক মানদন্ডে উন্নীত করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনায় ইতোমধ্যে সব ধরণের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর গবেষণাসহ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি তাঁর আগ্রহ, গুরুত্ব ও অব্যাহত উৎসাহ প্রদান ও সহযোগীতার ফলে এই অর্জন সম্ভব হয়েছে। স্কোপাস এর এই স্বীকৃতি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার প্রতি আগ্রহ রয়েছে এমন গুণী শিক্ষক, চিকিৎসক ও রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বিরাজ করছে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা। এই স্বীকৃতি শিক্ষক, চিকিৎসক ও রেসিডেন্টদের বিশ্বমানের গবেষণা কার্যক্রম সম্পন্ন করতে বড় ধরণের অবদান রাখবে। উচ্চতর মেডিক্যাল শিক্ষা ক্ষেত্রে ইতিবাচক ফল নিয়ে আসবে। আরো উন্নত মানের চিকিৎসাসেবা প্রদানে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা রাখবে।

এই স্বীকৃতি শিক্ষক, চিকিৎসক ও রেসিডেন্টদের মাঝে নবজাগরণের সৃষ্টি করবে, চিকিৎসাসেবা, উচ্চতর শিক্ষা প্রদান ও স্বাস্থ্য বিষয়ক গবেষণার ক্ষেত্রে হৃদয়ে সৃষ্টি হবে নতুন অনুরণন। ফলে চিকিৎসাসেবাসহ দেশের সামগ্রিক স্বাস্থ্যখাতে আসবে বৈপ্লবিক পরিবর্তন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বমানের চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হবে, দেশের রোগীরা চিকিৎসার জন্য বাইরে যাবে না, বিশ্বমানের গবেষণা হবে, বিশ্বমানের উচ্চতর মেডিক্যাল শিক্ষা অর্জন করে এখানের শিক্ষার্থীরা দেশে বিদেশে মর্যাদার আসনে নিজেদেরকে সুপ্রতিষ্ঠত করবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই প্রত্যাশা পূরণ সম্ভব হবে। আমি আশা করি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, চিকিৎসক ও রেসিডেন্টরা বিশ্বব্যাপী তাদের গৌরবোজ্জ্বল অবদান রাখার জন্য একদিন চিকিৎসা বিজ্ঞানে বিভিন্ন ধরণের আন্তর্জাতিক পুরস্কার অর্জন করতে সক্ষম হবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) ও  বিএসএমএমইউ জার্নালের অতিরিক্ত মূখ্য সম্পাদক (এডিশানাল এডিটর ইন চীফ) অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান বলেন, বিএসএমএমইউ জার্নালে দেশি বিদেশী বিভিন্ন গবেষণা কর্ম নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে। বিভিন্ন রোগ নিয়ে গবেষণা হচ্ছে, রোগ প্রতিরোধের উপায়সমূহ নিয়ে গবেষণা হচ্ছে, ওষুধ নিয়ে গবেষণা হচ্ছে, চিকিৎসা বিজ্ঞানের অগ্রগতি, নিত্যনতুন পদ্ধতি নিয়ে গবেষণা হচ্ছে এর ফলে মানুষের রোগ মুক্তি লাভ ও স্বাস্থ্যকর জীবন-যাপন তরান্বিত হচ্ছে। বিএসএমএমইউ জার্নাল স্কোপাসের স্বীকৃতি লাভ করায় তরুণ চিকিৎসক, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ভবিষ্যত রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীসহ শিক্ষকদেরকে তাদের চিকিৎসাসেবা, অধ্যায়ন ও অধ্যাপনা ও গবেষণায় বেশি করে মনোনিবেশ ও আত্মনিয়োগে ব্যাপকভাবে উৎসাহিত করবে তাই এই স্বীকৃতি জাতির পিতার নামে প্রতিষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়কে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যাশা অনুযায়ী বিশ্বের বুকে অবশ্যই অনন্য উচ্চতায় প্রতিষ্ঠিত করবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন ও পাবলিক হেলথ এন্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোঃ আতিকুল হক, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মোঃ হাবিবুর রহমান দুলাল, আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন গবেষক বিএসএমএমইউ জার্নালের নির্বাহী সম্পাদক অধ্যাপক এম মোস্তফা জামান।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

kjhdf73kjhykjhuhf
© All rights reserved © 2024