সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন

হার্টের রোগীর আলজেইমার রোগের ঝুঁকি বেশী

  • Update Time : বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৪.৩৯ পিএম

ডাঃ সঞ্জয় দত্ত

আমি আলজেইমার রোগ নিয়ে দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে রিপোর্ট করে এসেছি। আর এক্ষেত্রে বেশির পক্ষে সামান্য অগ্রগতিই হয়েছে বলে মনে হয় এবং অধিকাংশ রোগী ও তাদের প্রিয়জনদের জন্য সামান্য বিকল্প পথই খোলা আছে। কিন্তু “দ্য লাস্ট আলজেইমার’স প্যাসিয়েন্ট” শীর্ষক এক নতুন ডকুমেন্টারি চিত্রায়নের প্রক্রিয়ায় আমি দেশের সব জায়গাতেই রোগটির উপসর্গবিশিষ্ট বা রোগটিতে আক্রান্ত হওয়ার উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ এমন লোকজনের সঙ্গে দেখা করি। আমি দেখেছি, কেবল জীবনধারা বদলালেই তাদের মস্তিষ্কে এমিরয়েড প্ল্যাকের মাত্রা কমে যায়, তাদের বোধশক্তির উন্নতি হয় এবংএমনকি রোগটির পাল্টে যাওয়ার লক্ষণও ধরা পড়ে। এটি অসাধারণ ঘটনা এবং এটি আমাকে আমাকে আমার নিজের মস্তিষ্ক নিয়ে ভাবতে শুরু করতেও বাধ্য করে, কারণ আমার পরিবারের আলজেইমার রোগ থাকার ইতিহাস রয়েছে। কাজেই কিছুটা উদ্বেগের সঙ্গে হলেও আমি আমার ডিমেনশিয়া (স্মৃতিভ্রংশ) হওয়ার ঝুঁকি নিয়ে আরও জানার সিদ্ধান্ত নেই। এটি ছিল আমি কখনও উতরিয়েছি এমন এক অতি-ব্যক্তিগত ও দূরদর্শী অভিজ্ঞতা।

শুরুতে আমি আমার মস্তিষ্কের এক নিবিড় অনুসন্ধানের সম্মুখীন হই। এটি তার চেয়েও গভীর ছিল যা আমি এমনকি সম্ভব বলে ভেবেছিলাম। এটি সেই এনাটমি বা জেনেটিক্সের দিকে কোন সহজ দৃষ্টিপাত ছিল না, যা আমাকে বিশেষ কোন ধরনের ডিমেনশিয়ার দিকে নিয়ে যেতে প্রবৃত্ত হতে পারত। এর লক্ষ্য ছিল আমার শৈশবাবস্থা থেকে আমার শিক্ষা-জীবন ও বজ্রপ্রাপ্তির বছরগুলো পেরিয়ে এখন (আমার মধ্য-৫০ দশক কাল) পর্যন্ত সময়ব্যাপী আমার মস্তিষ্কের পূর্ণ বিবরণ অর্জন করা। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা, পুনানুপুঙ্খ পরীক্ষা আমাকে আমি কোথায় পৌঁছেছিলাম এবং আমাকে কিভাবে সবচেয়ে অনুকূল দিকে আমার পথ খুঁজে পেতে হত, সেই সম্পর্কে এক স্পষ্টতর ধারণা দিতে পেরেছিল।

এমনকি নিজেও একজন ব্রেইন সার্জন হওয়া সত্ত্বেও আপনার মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য কতখানি ভালভাবে পরিমাপ করা যায় তাতে আমি বিস্মিত হয়েছিলাম। হৃদপিজের কথা বলতে গেলে, কয়েকটি পরীক্ষা হৃদরোগ নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা, হৃদরোগ প্রতিরোধ ও চিকিৎসা করার উপায় সম্পর্কে আমাদের এক স্পষ্ট ধারণা দিতে সহায়ক হয়। তবে সম্প্রতিকালের আগে মস্তিষ্ক নিয়ে একই কথা আসলেই বলতে পারতাম না। অনেক মস্তিষ্ক চিকিৎসক এখনও কোন স্বাস্থ্যবান মস্তিষ্কের মাপকাঠি নির্ধারণ করতে পর্যন্ত হিমশিম খান। সাধারণ মতৈক্য এই যে, আপনার খুলির ভিতরের “ব্ল‍্যাকবক্স” বেশ দৃঢ়বন্ধ এবং এর সামর্থ্য সর্বোচ্চ মাত্রায় নিয়ে যাওয়া তো দূরের কথা, এর মূল্যায়ন করতে পর্যন্ত আপনার সামান্যই কিছু করার আছে।

নিওরোলজিস্ট ডাঃ রিচার্ডসন ইসাকসন আমার বন্ধু। মস্তিষ্ক নিয়ে আমরা বড় বড় আলোচনায় মিলিত হয়েছি। কাজেই আমি যখন আমার মস্তিষ্ক পরীক্ষা করানোর কথা ভাবছিলাম তখন আমি তাঁর কথা চিন্তা করলাম। আমি মার্চ মাসের এক সুন্দর সকালে ফ্লোরিডার ইনষ্টিটিউট অব নিওরোডিজেনেরেটিভ ডিজিজেসে রিচার্ডের সঙ্গে দেখা করতে বিমানে ফ্লোরিডার বোকা র‍্যাটনে গেলাম।

যখন আমি ক্লিনিকে ঢুকলাম, তখন আমার ফসফরিলেটেড টাউ রেশিও দেখতে আমার কতকগুলো রক্ত পরীক্ষা করা হয়। এটি আলজেইমারের রক্ত পরীক্ষা নামেই বেশি পরিচিত। মাত্র কয়েকটির নাম উল্লেখ করতে গেলে, আমার লিপিড, ইনফ্ল্যামেশন ও গ্লুকোজের মাত্রারও পরিমাপ করা হয়। আমার আলজেইমারের জেনেরিক ঝুঁকির বিষয়েও পরীক্ষা করা হয়। যদি আমি এপিওই৪ জীন বহন করতাম তবে আমার রোগটি বহন করার ঝুঁকি আরও বেশি থাকতে পারত। আমি আমার মুখের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে একটি টিউবে থুতু ফেলি। তারপর আমি একটি বডি কম্পোজিশন স্কেলের উপর পা রেখে যাই, যাতে আমার শরীরের কোথায় ও কতখানি হাড়, মেদ ও মাংসপেশী রয়েছে, তার ধারণা করা যায়।

এরপর এলো কগনিটিভ টেস্টিং। এটি ছিল সম্ভবত সবচেয়ে চমকপ্রদ। প্রথমে আমাকে আরাম করতে এবং আটলান্টা ফুটবল টিম ক্যাপ্টেনের এক ছোট ঘটনা বিস্তারিতভাবে শুনতে বলা হল। তিনি ছিলেন একজন কোয়ার্টারব্যাক এবং তিনি বড় গেমটির আগেই মংস্য শিকারে গিয়ে তাঁর আঙ্গুলে ব্যথা পেয়েছিলেন। আমি মনোযোগ দিয়ে শুনছিলাম বলে ভেবেছিলাম, কিন্তু হঠাৎ বুঝতে পারলাম আমি যেমন ভেবেছিলাম সম্ভবত তেমন মনোযোগের সঙ্গে শুনছিলাম না। “কোন দিন তিনি নিজেকে আহত করেন, এবং তাঁর জন্য কয়টি সিলাইয়ের দরকার হয়েছিল? আমাকে ১৫ মিনিট পর এসব প্রশ্ন করা হয়। সেটি কি তাঁর বুড়ো আঙ্গুল না বাম হাতের কনিষ্ঠ আঙ্গুল ছিল সে ব্যাপারেও কি আমি নিশ্চিত ছিলাম?

দ্রুত: ইংরেজি বর্ণ দিয়ে শুরু হওয়া যতগুলো শব্দ আপনি আবৃত্তি করতে পারেন করুন এবং তারপর সঙ্গে-সঙ্গেই যথাসম্ভব বেশিসংখ্যক প্রাণীর নাম বলুন। উভয় ক্ষেত্রেই বাড়তি এক মিনিট দেওয়া হবে। শব্দগুলো যত বেশি দীর্ঘ হবে এবং প্রাণীগলো যত অসাধারণ হবে তত ভাল। মনে রাখার জন্য কতকগুলো শব্দের তালিকা দেওয়া হয়, ত্রিমাত্রিক ঘনক্ষেত্র ও ঘড়ি আঁকতে দেওয়া হয়। কতকগুলো লোকের মুখচ্ছবি তাদের নামের সঙ্গে মানানসই করতে বলা হয়। আমাকে আঁচড়িয়ে ৫০টি বিভিন্ন গন্ধ সুকতে হয় এবং এক ক্ষেত্রে কোনকিছুর গন্ধ অনেকটা গ্যাসোলিন, এসেটোন বা কোন দাবাগ্নির মত ছিল কিনা স্থির করতে হয়। আরেক ক্ষেত্রে সেটা ল্যাভেন্ডার বা লিলাক ছিল কিনা স্থির করতে হয়। আমি হঠাৎ নিজেকে অনিশ্চিত অবস্থায় দেখতে পাই এবং সঠিক উত্তর দেওয়ার চেষ্টায় ঐ গন্ধের স্মৃতিযুক্ত কোন ঘটনা মনে আনতে চেষ্টা করি। আমার মনে হল খুব দক্ষ এক প্রসিকিউটর যেন আমার মস্তিষ্ককে জেরা করছেন।

যদিও আমার কখনও ডিপ্লেক্সিয়া ধরা পড়ে নি, তবুও এটা এমন কিছু যা আমার থাকতে পারে বলে রিচার্ড মনে করেন। “আপনি কি আঙ্গুলে গুণতে পারেন?” বলে তিনি আমাকে প্রশ্ন করলেন। আমি সব সময়েই সেটি করে এসেছি এবং কখনও সেটিকে উল্লেখযোগ্য বা গুরুত্বপূর্ণ কোন কিছু ভাবিনি। রিচার্ড ল্যাব টেস্টিংযের ফলাফল আমাকে দেখানোর আগে ব্যাখ্যা করে বলেন, “অধিকাংশ ডাক্তারই আপনার ফলাফল দেখে আপনি ভালই আছেন বলবেন। কিন্তু তাঁরা আসলে বলছেন আপনি সম্ভবত আগামী কয়েক বছর ভাল থাকছেন। আমি এখানে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি এবং আমার মনে হয়, আপনিও এমন অনেক ক্ষেত্র দেখতে যাচ্ছেন যেদিকে আমরা এখন আজ মনোযোগ দিতে পারি।”

কাজেই রিচার্ড যখন আমার ল্যাব রিপোর্ট উল্টিয়ে-পাল্টিয়ে দেখে একটি পৃষ্ঠা আমার হাতে তুলে দিলেন তখন এতে কেবল উল্লেখযোগ্য সংখ্যক হলুদ দাগই ছিল না, এমনকি কিছু লাল দাগও ছিল। আমি হতাশ হয়ে পড়ি।

আমার হোমোসাইস্টিনের মাত্রা উপরের দিকে ছিল, কিন্তু আমার বি১২ মাত্রা নিম্নমুখী ছিল। এটা রিচার্ডের কাছে বিস্ময়কর ছিল না। কারণ তিনি আমার এমটিএইচএফআর জীনে একটি মিউটেশনও দেখেছিলেন। এর অর্থ ছিল আমি সম্ভবত হোমোসাইস্টিন ভালভাবে প্রসেস করছিলাম না। আমার ওমেগা-৩ মাত্রাগুলো সঠিকই ছিল, কিন্তু তখন নয় যখন আপনি সেগুলোকে আমার ওমেগা-৬ মাত্রাগুলোর সঙ্গে তুলনা করেন। আমার ডিএইচইএ মাত্রাগুলো কিছুটা নিম্নমুখী ছিল। কিছুটা সেজন্যই এক দশক আগের তুলনায় আমার ক্যালরি বার্ন করতে আমার বেশি অসুবিধা হয়ে থাকতে পারে। আমি আমার শরীরে প্রত্যাশার তুলনায় বেশি ইনফ্ল্যামেশন বহন করছি জেনে বিস্মিত হলাম- বিশেষত যখন আমি ভাল বোধ করছি।

রিচার্ডের পরামর্শমত আমি আমার পুষ্টিসাধন ও প্রাত্যহিক রুটিনের ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতে শুরু করি। কয়েক বছর ধরে হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত উপাত্ত নিয়ে স্পষ্টত সন্তুষ্ট না হয়ে এবং বিশেষত রাস্তায় থাকার সময় আমার পক্ষে পিলগুলোকে রিফ্রিজারেটরে রাখা কঠিন হয়ে পড়ায় মাছের তেল কখনও গ্রহণ করতাম, আবার কখনও গ্রহণ করতাম না। সেটা অবশ্য রিচার্ডের কাছে স্পষ্ট ছিল। আমার খাবার পুষ্টিকর হওয়া সত্ত্বেও তাঁর মনে কোন সন্দেহ ছিল না যে, মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি সাধনের চেষ্টায় আমার ওমেগা-৩/ওমেগা-৬ অনুপাতে সহায়তার জন্য ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড দিয়ে পরিপূরণের বাড়তি পদক্ষেপ গ্রহণ করা যে আমার প্রয়োজন, এতে তাঁর কোন সন্দেহ ছিল না। এটি বি ভিটামিন বিশোষণ করেও সহায়তা করে। যা পরিপুরিত করা প্রয়োজন রিচার্ড তা নিয়ে খুবই সুনির্দিষ্ট ছিলেন: “১,০০০ মাইক্রোগ্রাম বি১২ এবং ১ দশমিক ৫ মিলিগ্রাম বি৬ সহ ৪০০ মাইক্রোগ্রাম মিথাইলফোলেট ভর্তি বোতল যাতে পান তা নিশ্চিত করুন।”

তিনি মস্তিষ্কের এমআরআই করানের পক্ষেও মত দেন। ফিব্রিনোজেনের মাত্রা সামান্য বাড়লে সেরেব্রেল ব্লাড ভেসেল ইনজুরি হতে পারে বলে তিনি উদ্বিগ্ন ছিলেন। ফিব্রিনোজেন এক প্রোটিন যা রক্ত জমাটবদ্ধ করতে (blood clot) সহায়ক হতে পারে। উদ্বেগের বিষয় ছিল, আমার ঘন-ঘন মাইক্রো ক্লট হতে পারে- যা আমার জীবনের শেষ দিকে ভাসকিউলার ডিমেনশিয়া হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি করতে পারে। আর শেষত করোনারি আর্টারি রোগকে এর একেবারেই প্রাথমিক পর্যায়ে খুঁজে বের করার জন্য কোন করোনারি ক্যালসিয়াম (CT) স্ক্যান, কারণ এক সাধারণ নিয়ম হল: যা হৃদপিণ্ডের জন্য খারাপ, তা মস্তিষ্কের জন্যও খারাপ।

লেখক, প্র্যাকটিসিং নিওরো-সার্জন ও সিএনএনয়ের চিফ করেসপন্ডেন্ট.

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

kjhdf73kjhykjhuhf
© All rights reserved © 2024