শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঈদে ‘তিথিডোর’ নিয়ে আসছে মেহজাবীন চৌধুরী কলেজ ছাত্র মুরাদ হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা ফের আইটেম গানে প্রিয়া অনন্যা স্মার্ট কর্মক্ষেত্র বুদ্ধিনির্ভর কাজের ক্ষমতা বাড়ায় নিরাপত্তা বিশ্লেষক আবদুর রশীদের মৃত্যুতে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির শোক প্রকাশ চে গেভারা যেভাবে কিউবার সশস্ত্র বিপ্লবের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছিলেন ট্রাম্প পুনঃনির্বাচিত হলে ইউয়ানের উপর চাপ ও বৈদেশিক মুদ্রার অস্থিরতা বাড়তে পারে মিরনজিল্লার হরিজন সম্প্রদায়কে পূনর্বাসন না করে উচ্ছেদ করা যাবে না নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয়ের তিনটি ‘টার্নিং পয়েন্ট’ নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুর রশীদ মারা গেছেন

আবার ঢাকায় দ্য পোয়েট : ভিন্ন মেসেজ 

  • Update Time : শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪, ৮.৪৯ পিএম

ফয়সাল আহমেদ

কবিতা  লেখা শুরু স্কুলজীবন থেকেই। তিনি কবিতা লিখেছে কখনো স্কুলের খাতা কিংবা ড্রইংবুকে, আর কাউকে না দেখিয়ে জমিয়ে রেখেছে শুধু নিজের জন্য। বলছি এম এফ হোসেনের কথা। তিনি ২৪ মে, গতকাল তার নিজস্ব কবিতা ও বেস গিটারের যুগলবন্দী, দ্য পোয়েট অনুষ্ঠিত করেন বনানীর যাত্রা বিরতিতে। সন্ধ্যা ৭ টায় এটি অনুষ্ঠিত হয়। এটি ছিল ব্যতিক্রমধর্মী এবং ভিন্ন ধরনের একটি অনুষ্ঠান। তার কবিতাগুলো অন্য সব কবিদের কবিতার মতোও নয়। কবিতার ধরন এবং আবৃত্তি সম্পূর্ণ আলাদা। কবিতাগুলোতে রয়েছে বিভিন্ন মেসেজ। কবির মতে, যা আগামির পৃথিবীকে বদলে দিবে। কবি তার নিজস্ব ভাষায় নিজস্ব ভঙ্গিমায় তা প্রকাশ করেছেন।

 

ঢাকায় দ্য পোয়েটের উদ্বোধনী শো হয় ২০২৩ এর জানুয়ারিতে। তারপর দেশে আর কলকাতা সহ দেশের বাইরে বিভিন্ন জায়গায় বেশ কিছু সফল শো এবং বহু স্বীকৃতির পর আবার ঢাকায় দ্য পোয়েট। এবারের বিশেষ সংযোজন পারফরমিং আর্ট।

 

কবি এম এফ হোসেনের লেখা লেখির শুরুটা সেই শৈশব থেকেই, শৈশবে তার নিজের কিছু কথা ছিল, তিনি তাই লিখে রাখতেন। ঐসব লেখা থেকেই হয়েছে কবিতা। সময়ের সংঙ্গে সঙ্গে সে পেইন্টিংকে বেছে নিয়েছিল প্রকাশের মাধ্যম হিসাবে, তবু তাকে কবিতা লিখতে হয়েছে, আর কখনো আবৃত্তিও করতে হয়েছে। তার সৃজনশীলতা সবসময়েই এক ইনস্টলেশন শিল্পের আকারে প্রকাশ পেয়েছে এবং এক পর্যায়ে এসে শৈশবের আরো এক ভালোবাসা মিউজিককে তিনি বেছে নিলেন প্রধান উপজীব্য হিসাবে। বাংলাদেশের অনেক ব্যান্ডের সংগে তিনি বাজিয়েছেন।

 

এম এফ ঢাকা শহরের বেস গিটার শিল্পী। বাংলাদেশের অনেক রক ব্যান্ড-এর সংগে বাজিয়েছেন তিনি। ২০১৭ সাল থেকে ভারতের মার্গ সংগীত ও সাইকেডেলিক মিউজিকের সংগে কাজের মাধ্যমে এক জ্যাজ টোন সৃষ্টি হয় তাঁর বাজনায়।

 

কবিতার শব্দগুলি উচ্চারিত হয় তার কন্ঠে ও হাতের আঙুলে। এবারের ঢাকা শো-তে দ্য পোয়েটের নতুন চেহারা, পারফর্মিং আর্ট যুক্ত হয়ে আরও জোরালো উচ্চারণ। কবি ও মিউজিশিয়ান সত্তার সঙ্গে এবারে মিলছে শিল্পী এম এফ-এর দৃশ্য-নান্দনিকতা।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

kjhdf73kjhykjhuhf
© All rights reserved © 2024