সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

ইরানের সঙ্গে আরব আমিরাতের বিমান পরিষেবা আবার চালু

  • Update Time : সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ৫.০৭ পিএম

সারাক্ষণ ডেস্ক

 

ওয়াশিংটন পোষ্টের শিরোনাম ‘‘Myanmar’s economy in crisis due to civil war, UNDP finds’’

‘‘গৃহযুদ্ধের কারণে মিয়ানমারে অর্থনীতি সংকট: ইউএনডিপি’’

প্রতিবেদনে বলা হয়, মিয়ানমারে গৃহযুদ্ধের কারণে অর্ধেক মানুষের জীবনমান দারিদ্র্যসীমার নিচে রয়েছে জানিয়েছে ইউএনডিপি। জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচির প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধ এখন জনগণকে তীব্র অর্থনৈতিক সঙ্কটের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। যেখানে মধ্যবিত্ত শ্রেণী নিম্নবিত্তে পরিণত হচ্ছে এবং দারিদ্র্য ভয়াবহভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। গবেষকরা দেখেছেন যে, তিন বছর আগের তুলনায় এখন মধ্যবিত্ত শ্রেণী অর্ধেক হয়েছে। ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতির মুখোমুখি হয়ে পরিবারগুলোর খাদ্যের ব্যয় কম করতে বাধ্য হচ্ছে। জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করছে।

২০২১ সালে সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখল করে গৃহযুদ্ধের শুরু করার পর থেকে ১২ হাজার ৬ শ’জনেরও বেশি সাক্ষাৎকার নিয়ে এই প্রতিবেদনটি করা হয়েছে। মিয়ানমারের মুদ্রার মূল্য কমেছে । লাখ লাখ শ্রমিক দেশ ছেড়ে চলে গেছে এবং পণ্যদ্রব্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় মজুরি স্থবির হয়ে পড়েছে।

অভ্যুত্থান এবং করোনাভাইরাস মহামারীর দ্বৈত প্রভাবের কারণে ২০২১ সালে মিয়ানমারের জিডিপি প্রায় ১৮  শতাংশ সংকুচিত হয়েছে। সামরিক নেতারা গত বছর দাবি করেছিলেন যে, অর্থনীতি পুনরুদ্ধার হচ্ছে এবং জিডিপি বার্ষিক ৪  শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। কিন্তু ডিসেম্বরে বিশ্বব্যাংক একটি পূর্বাভাস প্রকাশ করে যে, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ১ শতাংশের কাছাকাছি হবে।

 

 

গালফ নিউজের শিনোনাম ‘‘UAE airlines resume services to Iran’’

‘‘ইরানের সঙ্গে আরব আমিরাতের বিমান পরিষেবা আবার চালু’’

খবরে বলা হয়, আধা-সরকারি সংবাদ সংস্থা তাসনিম জানিয়েছে, সোমবার ভোরে ইরান তার রাজধানী থেকে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বিমানের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে।

শনিবারের হামলার পর সম্ভাব্য ইসরায়েলি প্রতিশোধের আশঙ্কায় দেশটি সপ্তাহান্তে তার আকাশসীমায় বিমানের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল।

ইরানের সিভিল এভিয়েশন অর্গানাইজেশনের বরাত দিয়ে ইমাম খোমেনি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং মেহরাবাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ইরানের তেহরানে আবার কার্যক্রম শুরু করেছে। জানা গেছে যে, উল্লিখিত দুটি বিমানবন্দর ১৫ এপ্রিল স্থানীয় সময় সকাল ৬ টায় ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করেছে।

দুবাই ক্যারিয়ার ফ্লাই দুবাই, যা তেহরান, বন্দর আব্বাস, এসফাহান, লার, মাশহাদ, শিরাজ এবং তিরানাসহ ইরানের গন্তব্যগুলোতে একাধিক দৈনিক ফ্লাইট পরিচালনা করে।

ফ্লাই দুবাইয়ের একজন মুখপাত্র গালফ নিউজকে বলেন, “এই অঞ্চলে আকাশসীমা খোলার পর ফ্লাই দুবাইয়ের বিমানগুলো নির্ধারিত সময়ে চলাচল করছে। আমরা আমাদের যাত্রীদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রাখছি, যেন তাদের ভ্রমণ পরিকল্পনায় কোন প্রভাব না হয় হয়। ”

সোমবার, ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত, কোনও বাতিলকরণ বা রুট পরিবর্তন করা হয়নি। তবে, যাত্রীদের ইরানের অনেক গন্তব্যে নতুন টিকিট বুক করার জন্য বুধবার, ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

 

 

পাকিস্থানের গণমাধ্যম ডনের একটি শিরোনাম “ Urban flood emergency imposed in Quetta due to heavy rainfall”

‘ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে কোয়েটায় জরুরি বন্যা ঘোষণা’

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,বেলুচিস্তান সরকার “ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে” কোয়েটায় একটি “শহুরে বন্যায় জরুরি অবস্থা” জারি করেছে। গত কয়েকদিনে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বজ্রসহ ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে মোট ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে রবিবার ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে খাইবার পাখতুনখোয়ায় ছয়জন, পাঞ্জাবে চারজন এবং বেলুচিস্তানে দুজন মারা গেছেন।

বেলুচিস্তানে, রবিবার মাকরান এবং অন্যান্য বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। বজ্রপাত এবং ছাদ ধসের ঘটনায় এক মহিলা সহ আরও দু ‘জন মারা যাওয়ার পরে প্রদেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০-এ।

১৪ এপ্রিল একটি বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, প্রাদেশিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (পিডিএমএ) বেলুচিস্তান প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ধারা ৩-এর অধীনে একটি “শহুরে বন্যা জরুরি অবস্থা” জারি করেছে।
সোমবার ভোরে বেলুচিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী সরফরাজ বুগতি, প্রদেশের বিভাগীয় কমিশনার এবং পিডিএমএ কর্মকর্তাদের সঙ্গে একটি অনলাইন বৈঠক আহ্বান করেন।

বৈঠকে, মুখ্যমন্ত্রীর প্রধান সচিব ইমরান জারকুন এবং পিডিএমএ-এর মহাপরিচালক জাহানজেব খান মুখ্যমন্ত্রীকে প্রদেশের সামগ্রিক বৃষ্টিপাত পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করেন। তারা কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ দিয়ে পরিচালিত উদ্ধার ও ত্রাণ অভিযানের বিবরণও দিয়েছে।

 

 

 

ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্থান টাইমসের শিরোনাম  ‘‘Arvind Kejriwal’s judicial custody extended till April 23’’

‘‘কেজরিওয়ালের বিচার বিভাগীয় হেফাজতের মেয়াদ ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত বেড়েছে’’ 

খবরে বলা হয়, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) হেফাজত শেষে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হওয়ার পরে অরবিন্দ কেজরিওয়াল তিহার জেলে রয়েছেন। দিল্লির একটি আদালত সোমবার আবগারি নীতি মামলায় মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বিচার বিভাগীয় হেফাজতের মেয়াদ ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িয়েছে।

ভার্চুয়াল কনফারেন্সের মাধ্যমে আদালতে হাজির হন কেজরিওয়াল। আদালত উল্লেখ করেছে যে, সহ-অভিযুক্ত কে কবিতার বিচারিক হেফাজতও ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

৫৫ বছর বয়সী এই আম আদমি পার্টির আহ্বায়ক কেজরিওয়াল তিহার জেলে রয়েছেন। হাইকোর্ট কেন্দ্রীয় সংস্থার জবরদস্তিমূলক পদক্ষেপ থেকে তাঁকে সুরক্ষা দিতে অস্বীকার করার পর ২১ মার্চ রাতে ইডি তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

এর আগে, সুপ্রিম কোর্ট তাঁর গ্রেফতারিকে চ্যালেঞ্জ করে কেজরিওয়ালের দায়ের করা আবেদনের বিষয়ে ইডির কাছ থেকে প্রতিক্রিয়া চেয়েছিল। বিচারপতি সঞ্জীব খান্না এবং দীপঙ্কর দত্তের শীর্ষ আদালতের বেঞ্চ ইডি-কে ২৪ এপ্রিলের মধ্যে জবাব দিতে বলেছে এবং বলেছে যে ২৯ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া সপ্তাহে এই মামলার শুনানি হবে।

এর আগে ৯ এপ্রিল, আদালত আম আদমি পার্টির (এএপি) নেতার পিটিশন খারিজ করে দিয়েছিল। গ্রেফতার হওয়া প্রথম বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী হলেন কেজ্রিওয়াল। তাঁর অন্য সহকর্মী মণীশ সিসোদিয়া এবং সত্যেন্দ্র জৈনও একই মামলায় জেলে রয়েছেন। এই মাসের শুরুতে, আপ-এর রাজ্যসভার সাংসদ সঞ্জয় সিং সুপ্রিম কোর্ট থেকে জামিন পেয়ে তিহার জেল থেকে বেরিয়ে আসেন।

 

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

kjhdf73kjhykjhuhf
© All rights reserved © 2024